24 C
Durgapur
Tuesday, April 20, 2021

লক্ষ্য ২০২১ বিধানসভা নির্বাচন,মাঠে নামলো বামেরা

শুভময় পাত্র, জেলার খবর, বীরভূম : আসন্ন ২০২১ এর নির্বাচনকে পাখির চোখ করে এগোচ্ছে রাজ্যের সমস্ত রাজনৈতিক দলগুলি।ময়দানে কোমর বেঁধে নেমে পড়েছে সবাই। আর এরই মধ্যে দিনকয়েক আগে শান্তিনিকেতনে বিশ্বভারতীর পাঁচিল দেওয়াকে কেন্দ্র করে ঘটে যাওয়া ঘটনা এখন একপ্রকার টাটকা রসদ সমস্ত ছোট-বড় রাজনৈতিক দলগুলির কাছে। আর এই ঘোলা জলে মাছ ধরতে রীতিমতন নেমে পড়েছে বামেরা (leftists)।

শনিবার শান্তিনিকেতনে সকাল থেকেই দেখা গেল তাদের। বামপন্থী সংগঠনের (leftists) এস এফ আই ও ডিওয়াইএফআই এর উদ্যোগে শান্তিনিকেতন মেলার মাঠ ঘেরার প্রতিবাদে এক নাগরিক কনভেনশনে আয়োজন করা হয়। প্রাকৃতিক দুর্যোগ কে উপেক্ষা করেই আজ সকাল থেকেই এস এফ আই ও ডিওয়াইএফআইয়ের কর্মী ও সদস্যরা শান্তিনিকেতন অগ্নিনির্বাপক কেন্দ্রের সামনে নাগরিক কনভেনশনের আয়োজন করে।বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিতরে এবং বাইরের বিভিন্ন রকম মানুষের আলোচনার মধ্য দিয়ে এদিন অশুভশক্তির গ্রাস থেকে বিশ্বভারতী কে মুক্ত করতে আয়োজিত হলো নাগরিক কনভেনশন এমনটাই মনে করছেন উদ্যোক্তারা।

SFI এবং DYFI এর পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, পাঁচিলের বিরোধিতায় এবং বিজেপি ও আরএসএসের দালাল উপাচার্যের বিরুদ্ধে এই নাগরিক কনভেনশনের আয়োজন করেছেন তারা। বর্তমান বিশ্বভারতীর পরিস্থিতির কথা তুলে ধরে বক্তৃতা ও রবীন্দ্রসঙ্গীতের মধ্যে দিয়ে তাদের ক্ষোভ ও বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষের প্রতি বিদ্বেষ তুলে ধরলেন ছাত্র-ছাত্রীরা। এদিনের এই নাগরিক কনভেনশনে উপস্থিত ছিলেন এসএফআইয়ের রাজ্য সম্পাদক সৃজন ভট্টাচার্য, ডিওয়াইএফআইয়ের এর কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য কলতান দাসগুপ্ত সহ বামপন্থী কর্মী সমর্থক ও ছাত্র ছাত্রীরা।

রাজ্য রাজনীতি থেকে একপ্রকার মুছে যাওয়া বামেরা (leftists) শান্তিনিকেতনের এই নাগরিক কনভেনশনের মঞ্চ থেকে কি আদেও ঘুরে দাঁড়াতে পারবে ? পারবে কি ২০২১ এর নির্বাচনে নিজেদের অস্তিত্বকে রক্ষা করতে ? যে মানুষের মন থেকে একপ্রকার মুছে যেতে বসেছে এই বামেরা (leftists) তারা কি পারবে আবার নিজেদেরকে প্রমান কমরে মানুষের মন জয় করতে ? এখন এটাই দেখার।

এই মুহূর্তে

x