30.2 C
Durgapur
Monday, June 14, 2021

বাঁকুড়ার পুনিশোল এ আব্বাস সিদ্দিকি

নরেশ ভকত, বাঁকুড়াঃ আজ বাঁকুড়ার পুনিশোল এর উপরডাঙ্গা ডহর ময়দানে এক বিশাল ইসলামিক জলসার আয়োজন করা হয় যেখানে ফুরফুরা শরিফের পীরজাদা আব্বাস সিদ্দিকি মূখ্য বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। তিনি এই জলসা থেকে আগামী বিধানসভা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্য রাখেন যা আগামী দিনে এই রাজ্যের রাজনীতিতে প্রভাব বিস্তার করতে পারে। তিনি বলেন যে পীর অর্থাৎ পথ প্রদর্শক। তিনি জানান যে আগামী নির্বাচনে তিনি মীমের সাথে থাকবেন নাকি বাম কংগ্রেস জোটে থাকবেন এই বিষয়টি আলোচনার স্তরে রয়েছে। পীরজাদা বলেন যে যাঁরা বলছেন যে তার ভোটে দাঁড়ানোর ক্ষমতা নেই তিনি কিছু মানুষকে বলির পাঁঠা করছেন তাদের কথার বিশেষ কোনো গুরুত্ব নেই। তার মতে তার কাঁধে বিধাযক হওয়ার চেয়েও গুরু দায়িত্ব আছে তাই তিনি এই সমস্ত সমালোচনায় কান দেন না। তার অভিযোগ যে এই রাজ্যে বিজেপিকে আনার পিছনে মমতা ব্যানার্জিই দাযী। তিনিই 1998 সালে বিজেপির সাথে জোট করেন। জলসার আয়োজকরা তাকে প্রতি জলসার জন্য যে কাঁড়ি কাঁড়ি টাকা দেন সেই নিয়েও প্রশ্ন উঠছে । এর উত্তরে তিনি বলেন যে এই বিষয়ে তার কিছুই বলার নেই। তিনি আরও বলেন যে কংগ্রেস আমলে সমাজের অপাঙ্ক্তেয় শ্রেণীর জন্য কাজ করা হয়েছিল বাম আমলেও কিছু কিছু কাজ হয় যদিও তিনি সেই সব কাজ যথেষ্ট ছিল না বলেই জানান কিন্তু তার অভিযোগ যে টি এম সির আমলে এই সমস্ত শ্রেণীর জন্য কোনো কাজই হয় নি। সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন যে যেহেতু সব বিধানসভা কেন্দ্রে প্রার্থী দেওয়ার মতো আর্থিক ক্ষমতা তাঁর নেই তাই তিনি নির্বাচনে জোট করতে বাধ্য হচ্ছেন। তিনি জানান যে যদি বাম কংগ্রেস মনে করে তাহলে তাঁদের সাথে আসন সমঝোতা হতে পারে।

abbas1 তিনি খুলে না বললেও জানান যে তাঁরা বাম কংগ্রেসের থেকে এই রাজ্যের 44 টির বেশী আসনের দাবি জানাবেন। পীরজাদা বলেন যে টি এম সির যে নেতারা টি এম সির অপশাসনের জন্য বিজেপিতে গেছে তারা নিরাশ হবে কিন্তু যারা আখের গোছাতে গেছে তারা আরও শক্তিশালী হবে ও আগামী দিনে এই দুটি দল এক জায়গায় আসবে। এরই সাথে তিনি বলেন যদি বাম কংগ্রেসের সাথে তাদের জোট না হয় তাহলে তারা তাদের ক্ষুদ্র জোট নিয়ে লড়বেন। রাজ্য সরকারকে কটাক্ষ করে তিনি বলেন যদি রাজ্য সরকারের দাবি মতো তারা মানুষের সব কাজ করে ফেলেছেন তাহলে মানুষ তাদের অস্বীকার করবে। সভা মঞ্চ থেকেও পীরজাদা আব্বাস সিদ্দিকি সমান আগ্রাসী ছিলেন। তিনি বলেন যে বর্তমান রাজ্য সরকার মদের দেদার লাইসেন্স দিলেও স্কুল কলেজ খোলাতে তাঁদের অনীহা। তিনি অভিযোগ করেন যে এই যে মমতা ব্যানার্জি জয় শ্রী রাম ধ্বনি শুনলেই রেগে যাচ্ছেন এটি তার ও বিজেপির আঁতাত। এর মাধ্যমে তিনি জয় শ্রী রাম ধ্বনিকে আরও প্রচার দিতে চাইছেন । তিনি প্রশ্ন করেন যাঁরা বলছেন যে তাঁরা বিজেপির বি টিম তারা জানাক যে বিজেপির সাথে কে জোট বেঁধেছিল। তিনি বলেন যে লোকসভাতে তো তাঁর দল ছিল না তাহলে তখন বিজেপি কিভাবে এই রাজ্যে 18টি আসন পেল।

এই মুহূর্তে

x