28.5 C
Durgapur
Thursday, June 24, 2021

প্রায় 2 বছর পর প্রতারকের বন্ধ দোকান খুলে আসবাবপত্র বাজায়াপ্ত করল বিষ্ণুপুর (Bishnupur) থানার পুলিশ(Police)

প্রায় 2 বছর পর প্রতারকের বন্ধ দোকান খুলে আসবাবপত্র বাজায়াপ্ত করল বিষ্ণুপুর (Bishnupur) থানার পুলিশ(Police)

নরেশ ভকত, বাঁকুড়াঃ বিষ্ণুপুর (Bishnupur)শহরের ময়রাপুকুর এলাকার বাসিন্দা বিষ্ণু চৌধুরী বছর দুই আগে নিজের দোকানঘরটি দক্ষিণামূর্তি সিঙ্গারাম নামে এক দক্ষিণী মানুষকে ভাড়া দিয়েছিলেন ফার্নিচারের শো-রুম করার জন্য। তাঁর ট্রেড লাইসেন্স থেকে জিএসটি সহ প্রয়োজনীয় সব নথি দেখেই দোকানঘর ভাড়া দিয়েছিলেন বলে দাবি করেন তিনি।

Bishnupur Police seize furniture

২০১৯ সালের জুন মাসে ওই দোকান খোলার পর অগ্রীম টাকার বিনিময়ে গ্রাহক করে বেশ কম দামে খাট পালঙ্ক থেকে ড্রেসিং টেবিল ফ্যান সহ অন্যান্য সামগ্রী বিক্রি করা হতে থাকে। অর্ধেকেরও কম দামে পছন্দের জিনিস পেয়ে খুশি গ্রাহকরাও। তাই খুব অল্প দিনে দোকানের সুনাম ছড়িয়ে পড়তে থাকে। বাড়তে থাকে গ্রাহকের সংখ্যও। এরপর এক সকালে গ্রাহকরা জিনিস নিতে এসে দেখেন দোকান বন্ধ। বেলা গড়িয়ে গেলেও দোকান খোলার নাম নেই। গ্রাহকরা মনেমনে প্রমাদ গুণতে শুরু করেন। খবর নিয়ে জানা যায়, তার আগের রাতে দোকানের সামনে লরি লাগিয়ে বেশকিছু আসবাবপত্র বের করে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। দোকানের মালিক দক্ষিণী মানুষটিরও কোনো হদিস পাওয়া যায় নি। ঘটনা পরিষ্কার হয় যে গ্রাহক করার নামে বহু মানুষদের প্রতারণার ফাঁদে ফেলে কয়েক কোটি টাকা নিয়ে চম্পট দিয়েছে ওই প্রতারক। ঘটনার পরে গত ২০১৯ সালের ২৯ জুন ওই বাড়ির মালিক সহ প্রতারিতরা বিষ্ণুপুর (Bishnupur) থানায় প্রতারণার কথা জানিয়ে লিখিত অভিযোগ দায়ের করে। সেই মামলা দীর্ঘদিন চলার পর সোমবার বিষ্ণুপুর (Bishnupur) আদালতের নির্দেশে পুলিশ (Police) দোকানের সিল ভেঙে ভিতরে থাকা বেশকিছু আসবাব বাজায়াপ্ত করল। এদিন বিষ্ণু চৌধুরী বলেন ‘২ বছর আগে দক্ষিণামূর্তি সিঙ্গারাম নামে একজন মাদ্রাজি ভদ্রলোক ট্রেড লাইসেন্স, জিএসটি কাগজ নিজের পরিচয়পত্র সব দেখিয়ে আমার দোকানঘরটি ভাড়া নেয়। প্রথমে বেশ কম দামে জিনিস বিক্রি করছিল। পরে গ্রাহক বানিয়ে তাঁদের কাছ থেকে অগ্রীম টাকা নেওয়া শুরু করে। এক মাসের কম সময়ে প্রচুর টাকা তুলে একদিন চম্পট দেয়। আমি দোকানের ভাড়াও পাইনি। আজ পুলিশ (Police) এসে দোকানের ভিতরে যা-কিছু ছিল সব নিয়ে গেছে’। পুলিশ (Police)জানিয়েছে, প্রতারণার অভিযোগে এক ব্যক্তির নামে মামলা দায়ের করা হয়েছিল। আজ বিষ্ণুপুর মহকুমা আদালতের নির্দেশে দোকানের ভিতরে থাকা আসবাবপত্র বাজায়াপ্ত করা হয়েছে। আদালতের পরবর্তী নির্দেশে সেগুলি নিলাম করা হতে পারে’।

এই মুহূর্তে

x