25.4 C
Durgapur
Sunday, January 17, 2021

ঠিকাদার সংস্থা দিয়ে রাজনৈতিক দল চলে না ; পিকে-র সংস্থাকে নিশানা তৃণমূল বিধায়কের

ডিজিটাল ডেস্ক, জেলার খবর: কোনো ঠিকাদার দিয়ে রাজনৈতিক দলের সংগঠন চালানো সম্ভব নয় , পিকের (Prashant Kishor) সংস্থাকে নিশানা করতে গিয়ে পরোক্ষে নিজের দলকেই বিপাকে ফেললেন তৃণমূল বিধায়ক মিহির গোস্বামী।

বিধানসভা নির্বাচনের আগে বাম, কংগ্রেস বিজেপির বিরুদ্ধে লড়তে সংগঠন মজবুত করতে বিশেষ তৎপরতা নিয়েছে শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস। লোকসভা নির্বাচনে বিজেপির ক্ষমতা বৃদ্ধির পর রাজ্যে নিজেদের জমি ধরে রাখতে চায় ঘাসফুল শিবির। সেই লক্ষ্যে ভোটকুশলী প্রশান্ত কিশোরকে (Prashant Kishor) দায়িত্ব দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁরই সংস্থা আই-প্যাক-এর ছকে দেওয়া কৌশলে একুশের নির্বাচনী লড়াই লড়বে রাজ্যের শাসক-শিবির।

দলনেত্রীর সেই সিদ্ধান্তকেই এবার বিদ্রুপ করলেন কোচবিহারের তৃণমূল বিধায়ক মিহির গোস্বামী। পিকে-(Prashant Kishor) র সংস্থাকে বিঁধে মিহিরবাবু বলেন , ‘‘রাজনৈতিক দলের সংগঠন চলে নেতা-কর্মীদের সর্বসম্মত সিদ্ধান্তের উপর ভিত্তি করে। ঠিকাদার দিয়ে রাজনৈতিক দলের সংগঠন চালানো সম্ভব নয়।’’ এতে আরও ক্ষতি হবার সম্ভাবনা রয়েছে বলেও তিনি জানান।

শুধু মন্তব্য করেই ক্ষান্ত থাকেন নি বিক্ষুব্ধ বিধায়ক। শুক্রবার নিজের কার্যালয়ে লাগানো তৃণমূলের পতাকা-সহ ব্যানারও তিনি খুলে ফেলেন বলে জানা গেছে । এমনকি কার্যালয়ের ভিতরে থাকা মুখ্যমন্ত্রীর ছবি সরিয়ে সেখানে স্বামী বিবেকানন্দ, নেতাজি, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের মতো মনীষীদের ছবি লাগিয়েছেন তিনি । কার্যালয়ের সামনে নতুন ব্যানার লাগিয়েছেন , যেখানে লেখা রয়েছে “কোচবিহার দক্ষিণ কেন্দ্রের বিধায়ক মিহির গোস্বামীর কার্যালয়”।

সেই কার্যালয়েই গতকাল কোচবিহার দক্ষিণ বিধানসভা কেন্দ্রের কর্মী এবং নেতৃত্বদের একাংশকে নিয়ে বৈঠক করেন বিধায়ক। তারপর সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে প্রশান্ত কিশোরের (Prashant Kishor)সংস্থা ‘আইপ্যাক’-এর বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দেন।

এই মুহূর্তে

x