24.9 C
Durgapur
Tuesday, April 20, 2021

ফুল তোলার শাস্তি ! একঘরে গ্রামের ৪০ দলিত পরিবার

ডিজিটাল ডেস্ক , জেলার খবর: জাতিভেদ , অস্পৃশ্যতা , বর্ণ-বিদ্বেষ রোগে এখনো বিদ্ধ আমাদের সমাজ। একবিংশ শতাব্দীতে দাঁড়িয়ে একদিকে যখন চাঁদের মাটি ছোঁয়ার স্বপ্ন দেখছে ভারত , তখন সে দেশেরই অন্যপ্রান্তে উচ্চবর্ণের ব্যক্তির বাড়ি থেকে ফুল তোলার অপরাধে একঘরে (Social Boycott) করে দেওয়া হয় দলিত পরিবারকে।

ওড়িশার ঢেঙ্কানল জেলার কান্তিও কাটেনী গ্রাম। প্রায় ৭০০ পরিবারের বাস রয়েছে প্রত্যন্ত এই গ্রামে । ২ মাস আগে সেখানকার বাসিন্দা বছর পনেরোর এক দলিত কিশোরী গ্রামের উচ্চবর্ণের ব্যক্তির বাড়ি থেকে ফুল তোলে। শুরু হয় দুপক্ষের মধ্যে তুমুল ঝগড়া । স্থানীয় পঞ্চায়েতের উদ্যোগে ঝগড়া মেটানো হয় । সেখানেই ঠিক হয় অপরাধের শাস্তি হিসেবে ওই গ্রামে বসবাসকারী ৪০ টি দলিত পরিবারকে একঘরে (Social Boycott) করে দেওয়া হোক । বারংবার ওই কিশোরীর পরিবারের তরফে ক্ষমা চাওয়া হলেও ক্ষমা মেলে নি বলে অভিযোগ ।   

সামাজিকভাবে বয়কট (Social Boycott) করার ফলে গ্রামের দলিতদের কার্যত একঘরে করে দেওয়া হয়। ফলে একদিকে তারা যেমন কোনো কাজ করতে পারছেন না তেমনই গ্রামের দোকান-বাজার থেকে জিনিস দেওয়া হচ্ছে না। সামাজিক অনুষ্ঠানেও যোগ দিতে দেওয়া হচ্ছে না তারা। এই পরিস্থিতিতে প্রশাসনের দ্বারস্থ হয়েছে গ্রামের দলিত পরিবারগুলি।

গ্রামের উচ্চবর্ণের ব্যক্তিদের অংশ দাবি , গন্ডগোলের জেরে ওই পরিবারগুলির সদস্যদের সঙ্গে শুধু কথা বলতেই বারণ করা হয়েছিল। পুলিশ প্রশাসনের হস্তক্ষেপে সমস্যার সমাধান হয়ে গেছে। গ্রামের প্রধান জানিয়েছেন , সমস্যার সমাধান হয়ে গেছে , দলিতরা আবারো আগের মতোই জীবনযাপন করবেন।

এই মুহূর্তে

x