30.2 C
Durgapur
Sunday, August 1, 2021

মিষ্টিতেও ‘বেস্ট বিফোর’ উল্লেখ করা বাধ্যতামূলক করল FSSAI

ডিজিটাল ডেস্ক , জেলার খবর: বাঙালির মিষ্টি বিলাসিতার জুড়ি মেলা ভার। উৎসব হোক বা পার্বণ , মিষ্টি ছাড়া সবকিছুই যেন ফিকে। খাবারের শেষপাতে তা সে মিষ্টি দই হোক বা রসগোল্লা। মিষ্টি ছাড়া ভুরিভোজ ! নৈব নৈব চ।

দুর্গাপুজো থেকে ভাইফোঁটা, ভরপুর এই ফেস্টিভ মরসুমে মিষ্টির চাহিদাটাও যেন বেড়ে যায় অনেকটাই । তবে পাড়ার দোকানে মিষ্টি কিনতে গিয়ে কখনো দেখেছেন তার এক্সপায়ারি ডেট ? না এতদিন এই শর্ত কেবলমাত্র প্যাকেটজাত বা কৌটোজাত মিষ্টির ক্ষেত্রে প্রযোজ্য ছিল। তবে এবার থেকে মিষ্টির দোকান থেকে কেনা মিষ্টির ট্রেতেও লিখে রাখতে হবে ‘বেস্ট বিফোর’ (Best before date’) অর্থাৎ আপনি যে মিষ্টি কিনছেন সেটি কবে বানানো হয়েছে আর কতদিন পর্যন্ত টা ঠিক থাকবে। নয়া নির্দেশিকায় সেকথা জানাল খাদ্য নিয়ামক সংস্থা FSSAI।

১ লা অক্টোবর থেকেই এই নয়া নিয়ম লাগু হচ্ছে। ইতিমধ্যেই সমস্ত রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিকে এই প্রসঙ্গে চিঠি পাঠানো হয়েছে। যেখানে উল্লেখ করা হয়েছে, যে প্যাকেটজাত মিষ্টিতে যেমন ‘এক্সপায়ারি ডেট’ রাখা বাধ্যতামূলক তেমনি প্যাকেটজাত নয় এমন মিষ্টির ক্ষেত্রে দোকানের ট্রে-তে লিখে রাখতে হবে ‘বেস্ট বিফোর’(Best before date’)। মিষ্টির উপাদানের উপর নির্ভর করে প্রতিটি মিষ্টির ‘বেস্ট বিফোর’ অর্থাৎ কতদিন পর্যন্ত তা খাওয়ার যোগ্য তা নির্ধারণ করা হবে।

পয়লা অক্টোবর থেকে এই নিয়ম কার্যকর হবে গোটা দেশে। কেন্দ্রীয় খাদ্য নিয়ামক সংস্থা FSSAI নির্দেশ ওষুধের প্যাকেটের মতো মিষ্টি যে সব ট্রেতে দোকানে সাজিয়ে রাখা হয় তার গায়ে লিখে রাখতে হবে ‘বেস্ট বিফোর ডেট’(Best before date’)। অর্থাৎ কতদিনের মধ্যে সেই মিষ্টি খেয়ে নেওয়া ভালো। সেই সঙ্গে মিষ্টি কবে তৈরি করা হয়েছে, সেটাও উল্লেখ করার জন্য সুপারিশ করা হয়েছে

খাদ্য নিয়ামক সংস্থার এই ঘোষণার ফলে প্রিন্টং মেটিরিয়ালের খরচ অনেকটা বেড়ে যাবে বলে মনে করা হচ্ছে। ফলে সেক্ষেত্রে মিষ্টির দাম বাড়ার সম্ভাবনাও থাকছে। উৎসবের মরসুমের আগে যা খানিকটা হলেও উদ্বেগ বাড়িয়েছে মিষ্টি প্রেমীদের।

এই মুহূর্তে

x