34.1 C
Durgapur
Wednesday, May 19, 2021

বোধনের আগেই বিসর্জন ! ৩ কন্যাকে দামোদরে ছুঁড়ে ফেলল বাবা

ডিজিটাল ডেস্ক, জেলার খবর: মৃন্ময়ী মায়ের আরাধনায় মেতেছে দেশ , চারিদিকে সাজ সাজ রব। অথচ রক্তমাংসের সেই মায়ের রূপ ঘরে জন্মালেই হয়ে ওঠে সংসারের ‘বোঝা’। নারীশক্তি, নারী পুরুষ সমানাধিকার নিয়ে সুর যতই চড়াই না কেন পুরুষতান্ত্রিক সমাজের ছবিটা বদলায়নি এতটুকুও। মেয়েদের(Daughters)বাঁচানোর তাগিদে , বড় করার তাগিদে যে দেশে বেটি বাঁচাও বেটি পড়াও , কন্যাশ্রীর মতো কর্মসূচি গ্রহণ করতে হয় সরকারকে সেই দেশ কোন অবক্ষয়ের পথে চলছে ? জানা নেই।

দেবীপক্ষে অমানবিক ঘটনার সাক্ষী থাকলো কুলটীর চিনাকুড়ি ২ নম্বর এলাকা। দামোদরে নিজের ৩ কন্যাসন্তানকে (Daughters)ছুঁড়ে ফেলে দিল বাবা।এক প্রত্যক্ষদর্শী জানান , বুধবার সকাল ১০ টা নাগাদ চিনাকুড়ি লাইনপার এলাকার বাসীন্দা মিথিলেশ ঠাকুর নিজের ৩ কন্যাকে (Daughters)মাঝ নদীতে ছুঁড়ে ফেলেন।

প্রত্যক্ষদর্শী রাজকুমার চৌধুরী তৎক্ষণাৎ এলাকার মানুষকে ঘটনার কথা জানান। নদীতে নেমে খোঁজাখুঁজি শুরু করে উদ্বার হয় ১০ বছরের এক কন্যা সন্তানকে উদ্বার করা গেলেও বাকি ২ সন্তানের (Daughters)খোঁজ মেলে নি। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় কুলটি থানার পুলিশ। বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীর সদস্যরা বাকি ২ জনের খোঁজে নদীতে সন্ধান চালায়।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, অভিযুক্ত মিথিলেশ ঠাকুর তার প্রথম স্ত্রী মারা যাওয়ার পর দ্বিতীয়বার বিয়ে করেন। প্রথম পক্ষের ২ কন্যা সন্তান ও দ্বিতীয় পক্ষের স্ত্রীর ১ কন্যা সন্তান। মিথিলেশ ঠাকুরকে আটক করেছে পুলিশ। তবে কী কারনে এই রকম নির্মম সিদ্ধান্ত ? জানা যায় নি।

এই মুহূর্তে

x