বাংলার মানুষ বাংলা শাসন করবে, গুজরাট না : একুশের বার্তা তৃণমূল সুপ্রিমোর

21
mamata bannerjee

ডিজিটাল ডেস্ক , জেলার খবর: একুশে জুলাইয়ের ভার্চুয়াল সভা থেকে সভাবসিদ্ধ ভঙ্গিমায় বিজেপিকে আক্রমন শানালেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Bannerjee)। বক্তব্যের শুরু থেকে শেষ , একের পর এক ইস্যুতে কেন্দ্রীয় সরকারের তুলোধনা করে একুশের বিধানসভা ভোটে বদলা নেওয়ার হুঁশিয়ারি দিলেন দলনেত্রী । আগামী দিনেও যে বাংলার শাসনভার তৃণমূলের হাতেই থাকবে , এদিন তেমনি দাবি করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ।

বিজেপিকে বহিরাগত তকমা দিয়ে স্পষ্ট জানিয়ে দেন , যে বাংলার মানুষ বাংলা শাসন করবে, গুজরাট বাংলা শাসন করবে না। শুধু তাই নয় , বিজেপিকে ভোট দিলে জীবন ও জীবিকা দুই যাবে বলে রাজ্যবাসীকে এদিন রীতিমত সতর্ক করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Bannerjee) । একুশের বিধানসভায় বিজেপির জমানাত জব্দ করে বাংলায় বাংলার মানুষ শাসনভার নেবে তা নিশ্চিত করতে এদিনের সমাবেশে শপথ নেওয়ার কথা বলেন তৃণমূল সুপ্রিমো ।

তৃণমূল নেত্রীর এদিনের বক্তব্যে ফের উঠে আসে এনআরসি-এনপিআর-সিএএ প্রসঙ্গ । বিরোধী বিজেপিকে তিনি মনে করিয়ে দেন যে , করোনা চলছে বলে এনআরসি-র আন্দোলন তিনি ভোলেন নি। কিভাবে দিল্লিতে দাঙ্গা করে নর্দমায় দেহ ফেলে দেওয়া হয়েছিল , মানুষে মানুষে বিভেদ তৈরির চেষ্টা হয়েছিল -সব মনে আছে তাঁর। কেউ প্রতিবাদ করলেই কেন্দ্রীয় সরকার তার মুখ বন্ধ করে দেয় বলেও এদিন অভিযোগ করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Bannerjee)।

রাজ্যের আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে বিজেপি নেতা-কর্মীদের আনা অভিযোগকে এদিন নিশানা করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় । বলেন, কথায় কথায় গাড়ি জ্বালিয়ে দিচ্ছে । রাস্তায় বসে পড়ছে। সারাদিন ধরে দাঙ্গা, গুন্ডামি, আগুন লাগানোর কথা বলছে , আর বলে কিনা রাজ্যে আইনশৃঙ্খলা নেই ? লাগাতার অপপ্রচার চালিয়ে যাচ্ছে। উত্তরপ্রদেশের পরিস্থিতিকে জঙ্গলরাজের সঙ্গে তুলনা করেন দলনেত্রী । মোদী-অমিত শাহ জুটিকে বিঁধে বলেন, ‘যাঁরা এজেন্সি দিয়ে দেশ চালান, তাঁরা দেশের নেতা নন ৷ তৃণমূলের উপর ভরসা রাখুন ৷ ২০২১ সালে তৃণমূলই ফের সরকার গড়বে৷’

প্রতি বছর একুশের শহীদ সমাবেশ থেকে দলীয় নেতা-কর্মীদের রাজনৈতিক পাঠ পড়ান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Bannerjee) । ২০২১ সালের বিধানসভা নির্বাচনের আগে এটাই ছিল তৃণমূলের কাছে প্রচারের অন্যতম বড় মঞ্চ, কাজেই এবছরের ২১ শে জুলাইয়ের শহীদ দিবসের সমাবেশের গুরুত্ব ছিল অনেকটাই আলদা । কিন্তু করোনার কারনে ধর্মতলার বুকে মঞ্চ বেঁধে সমাবেশ করা যায় নি । কিন্তু, তাতে কি ? নিয়ম মতো ভার্চুয়াল সভা থেকে আসন্ন বিধানসভার আগে দলীয় কর্মীদের ভোকাল টনিক দিলেন দলনেত্রী ।