28.4 C
Durgapur
Sunday, August 1, 2021

সুরক্ষায় জোর , দর্শকহীন পুজোর ভাবনা শহরের একাধিক উদ্যোক্তাদের

ডিজিটাল ডেস্ক, জেলার খবর: করোনা আবহে পুজো, তাই পুজো কমিটিগুলিকে বাড়তি সতর্কতা নেওয়ার কথা বলেছে প্রশাসন। কিন্তু পুজোর দিন ঘনিয়ে আসার সাথে সাথে মার্কেট , দোকানগুলিতে যেভাবে ক্রেতারা ভিড় জমাচ্ছে তাতে চিন্তা বেড়েছে পুজো কমিটিগুলির।

এই পরিস্থিতিতে মানুষের জীবনের মূল্যের কথা ভেবে ভার্চুয়ালি পুজোর পথে হেঁটেছে কলকাতার নামজাদা পুজো উদ্যোক্তারা। বুধবারই মধ্য কলকাতার সন্তোষ মিত্র স্কোয়্যার (লেবুতলা পার্ক) পুজো কমিটি জানিয়েছিল, অনেক চিন্তাভাবনা, আলাপ-আলোচনার পর দর্শকহীন (Visitor) পুজো করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তারা। অর্থাৎ , এবার সন্তোষ মিত্র স্কোয়্যার-এ ক্লাব সদস্য ছাড়া আর কাউকে (Visitor) প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হবে না। সেই একই পথে হাঁটল দেবদারু ফটক।

উদ্যোক্তারা জানান, পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে এবছর যতটা সম্ভব কম পরিসরে পুজোর আয়োজন করেছেন তারা। সরকারি নির্দেশিকা মেনে রাস্তার অনেকটা কাছে এগিয়ে আনা হয়েছে মণ্ডপ। যাতে করে সোজা রাস্তা থেকেই মায়ের দর্শন করে বেরিয়ে যেতে পারেন মানুষ (Visitor)। কিন্তু বর্তমানে রাজ্যে যেভাবে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা প্রতিনিয়ত বাড়ছে , মৃত্যু মিছিল বাড়ছে সেই দিকে তাকিয়ে মানুষের সুরক্ষাকেই অগ্রাধিকার দিয়েছেন তারা। সিদ্ধান্ত নিয়েছেন দর্শনার্থীদের (Visitor) প্রবেশের অনুমতি না দেওয়ার।

তারা জানান, এবছর না হয় সকলে ঘরে বসেই দেবদারু ফটকের মন্ডপ , প্রতিমা দেখুক। তবেই তো আসছে বছর সবাই মিলে ফের উৎসবে মেতে উঠতে পারবেন সকলে। ক্লাব সদস্যরা তাদের সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে লিখেছেন , এবার দেবদরুরু ফটক বন্ধ! বাড়িতে থাকুন , সুস্থ থাকুন , দেখা হবে একুশে।

একই ভাবে সচেতনতার কারনে পুজো করার সিদ্ধান্ত থেকে পিছু হটেছেন মেডিক্যাল কলেজ। চিকিৎসকদের একাংশ যারা পুজো করতে উদ্যোগী হয়েছিলেন গতকাল তাঁরা প্রেস রিলিজ করে নিজেদের সিদ্ধান্তের বদলের কথা জানান।

সম্প্রতি রাজ্যে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা যে হারে বাড়ছে, তাতে পুজোর পর বড় বিপদের আশঙ্কা করছেন বিশেষজ্ঞরা। সুস্থতার হার বাড়লেও রাজ্যে সংক্রমণের রেকর্ড অব্যহত । এখন পরিস্থিতি চলতে থাকলেপুজোর পর পরিস্থিতি আরো ভয়ানক চেহারা নেওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

এই মুহূর্তে

x