২১ শে জুলাইয়ের শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি বোলপুরে

28
bolpur

শুভময় পাত্র, বীরভূম: বোলপুরে (Bolpur) একুশে জুলাই-এর শেষ পর্বের প্রস্তুতি চলছে । বর্তমানে সারা বিশ্বের পাশাপাশি পশ্চিমবঙ্গেও করোনা ভাইরাসের প্রকোপ দিনের পর দিন বেড়েই চলেছে। সংক্রমন কম হওয়ার খবর এখন নেই বললেই চলে । এমত অবস্থায় এগিয়ে আসছে বিধানসভা নির্বাচন আর তাকে ঘিরে শুরু হয়েছে বিভিন্ন জল্পনা । একুশের বিধানসভা নির্বাচনে আগে এই বছরের ২১ শে জুলাইয়ের অনুষ্ঠান তৃণমূল নেতৃত্বের কাছে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ।

কিন্তু করোনা ভাইরাসের মর্মান্তিক পরিস্থিতিতে ‘একুশে জুলাই’-এর সমাবেশ হবে না বলে আগেই জানিয়েছিল তৃণমূল কংগ্রেস। শুক্রবার দলীয় বৈঠকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন বুথস্তরে দলীয় কর্মীরা শহিদদের শ্রদ্ধা জানাবেন। তারপর দলীয় কর্মীদের উদ্দেশে ভার্চুয়াল বক্তৃতা দেবেন তৃণমূল সুপ্রিমো। আগামী বছরের বিধানসভা নির্বাচনের আগে এবারের ‘একুশে জুলাই’ তাই তৃণমূলের সবথেকে বড় কর্মসূচি।

করোনার জেরে সমাবেশ ভেস্তে গেলেও দলীয় স্তরে কীভাবে কর্মসূচি পালন করা হবে, তা নিয়ে তৃণমূল নেতানেত্রীদের সঙ্গে বৈঠক করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ।বৈঠকের পর দলের এক বর্ষীয়ান নেতা বলেন, ‘ওই দিন দুপুর ১ টা থেকে ২ টো পর্যন্ত বুথস্তরে আমাদের নেতা এবং দলীয় কর্মীরা যাবতীয় সুরক্ষাবিধি মেনে ছোটো জমায়েত করবেন। দুপুর ২ টো থেকে ৩ টে পর্যন্ত মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দলের নেতা এবং কর্মীদের উদ্দেশে ভার্চুয়াল ভাষণ দেবেন ।’ তৃণমূল কংগ্রেসের বিভিন্ন ফেসবুক পেজ, ইউটিউব চ্যানেল ও ওয়েবসাইটে দলনেত্রীর সেই ভাষণ প্রচার করা হবে।

এদিন তারই উদ্দেশ্যে বোলপুর (Bolpur) টাউন লাইব্রেরীতে সাজো সাজো রব । শহীদ বেদী তৈরি করা দলীয় পতাকা টাঙ্গানো থেকে শুরু করে রীতিমত ছোটখাটো এক জনসভার আয়োজন করে বসেছে বোলপুর তৃণমূল কর্মী সংগঠন । জেলা তৃণমূলের সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল এর নির্দেশে শুরু হয়ে গেছে তারই প্রস্তুতি। দলের সুপ্রিমো আগামীকাল বেলা দুটো থেকে তিনটে পর্যন্ত দলীয় কর্মীদের ও সাধারণ মানুষের উদ্দেশ্যে একুশে জুলাই উপলক্ষে যে বক্তব্য উপস্থাপন করবেন সেটা সকলের কাছে পৌঁছে দেওয়ার লক্ষ্যে রীতিমত সমস্ত রকম ব্যবস্থাই করে ফেলেছেন দলীয় কর্মী সমর্থকরা