29 C
Durgapur
Monday, August 2, 2021

বাগরাকোট চাবাগানের(Chabagan) মতো সমস্ত বন্ধ চাবাগানই খুলে যাবে- বেচারাম মান্না

বাগরাকোট চাবাগানের (Chabagan)মতো সমস্ত বন্ধ চাবাগানই খুলে যাবে- বেচারাম মান্না

জলপাইগুড়ি:: ‘ডুয়ার্সের মানাবাড়ি, বাগরাকোট চাবাগানের মতো সমস্ত বন্ধ চাবাগানই(Chabagan) খুলে যাবে। মেটেলি ব্লকের কিলকট, নাগেশ্বরীসহ অন্যান্য বন্ধ চাবাগান সব জটিলতা কাটিয়ে সচল হয়ে উঠবে। উত্তরবঙ্গের ২৮৪ টি চাবাগানে একই পরিবেশ তৈরি হবে।’ মঙ্গলবার মূষলধারে বৃষ্টির মধ্যে মাল মহকুমার মানাবাড়ি চাবাগানে(Chabagan) এসে এই কথাগুলো বলেন রাজ্যের শ্রমমন্ত্রী বেচারাম মান্না। এদিন তার সঙ্গে ছিলেন অনগ্রসর উন্নয়ন ও আদিবাসী উন্নয়ন দপ্তরের মন্ত্রী বুলু চিক বরাইক, তৃনমুল কংগ্রেস শ্রমিক নেতা তথা ঋতব্রত বন্দোপাধ্যায় এবং শ্রম দপ্তরের অন্যান্য আধিকারিকরা। 
এদিন মানাবাড়ি চাবাগানে দুই মন্ত্রী ও অন্যান্যদের আদিবাসী রীতি রেওয়াজ মেনে বরন করেন চাবাগানের শ্রমিকরা। আদিবাসি এবং নেপালী নৃত্য পরিবেশন করেন শ্রমিক পরিবারের ছেলেমেয়েরা। এদিন শ্রমমন্ত্রী চাবাগানের শ্রমিক দের সাথে কথা বলে তাদের সমস্যার কথা শোনেন। পরে সাংবাদিকদের বলেন, “এই মানাবাড়ি চাবাগানে গত পাঁচ বছর যাবত অচলাবস্থা চলছিল। গত ডিসেম্বর মাসে এই চাবাগানটি নতুন মালিকানার অধীনে খোলা হয়েছে। এখন এই চাবাগানের শ্রমিকদের মুখে হাসি ফুটেছে। বাগান খোলার পর শ্রমিকরা কেমন আছে তা আমি সরজমিনে দেখতে এসেছি। একইভাবে আগামী ১ জুলাই থেকে বাগরাকোট চাবাগান খুলে যাবে। তারপর আইনের জটিলতা কাটিয়ে কিলকট, নাগেশ্বরীসহ অন্যান্য চাবাগানগুলোও খোলা হবে। সমস্ত চাবাগানে একই পরিবেশ বিরাজ করবে। শ্রমিকেরা যাতে সুখে শান্তিতে থাকতে পারে সেটাই আমাদের সরকারের লক্ষ।

এই মুহূর্তে

x