28 C
Durgapur
Friday, May 7, 2021

৭৫৬ বছরের পুরনো রজক পরিবারের কালীপুজোকে ঘিরে রয়েছে নানা ইতিহাস

নিজস্ব সংবাদদাতা, বুদবুদ: করোনা আবহে এবার সমস্ত বিধি নিষেধ মেনেই কালীপুজোর (Kalipuja) আয়োজন করেছে বুদবুদের মানকরের রজক পরিবার। অন্যান্য বছর পুজোয় দর্শনার্থীরা মন্দিরে প্রবেশ করলেও এবার মাস্ক পরে দূর থেকেই প্রতিমা দর্শন করবেন দর্শনার্থীরা । এবছর ৭৫৬ বছরে পদার্পন করলো বুদবুদের মানকরের রজক পরিবারের কালীপুজো। এই পুজোর বৈশিষ্ট্য হল বলির সময় যে হাঁড়ি কাঠে বলি হয় তার মুখ ঘোরানো থাকে মন্দিরের দিকে।

পরিবার সূত্রে জানা যায় , তাদের পুজোর (Kalipuja) যিনি প্রতিষ্ঠাতা তিনি কালীপুজো করার জন্য রজক পরিবারের কাছে আসেন ২৩ শের আতপ চাল চান। কিন্তু রজক পরিবারের আর্থিক অবস্থা ভালো না থাকার জন্য তা দিতে পারবে না বলতেই সাধক বাড়ির কোন কোন জায়গায় কোন হাঁড়ির ভিতর ২৩শের আতপ চাল আছে তা বলে দেন। রজক পরিবারের সকলেই হতবাক হয়ে বাড়ির ভিতরে ঢুকে ডেকে হাঁড়ির ভিতরে সত্যি সত্যিই চাল মজুত রয়েছে।

এমনকি ছাগ বলি দেবার জন্য ছাগ কেনার সামর্থ না থাকায় তিনি আবার গোয়ালের ভিতর দেখতে বলেন।সেখানে গিয়ে পরিবারের সকলেই দেখেন গোয়ালের ভিতর একটি ছাগল বাঁধা রয়েছে

এমনই নানান অলৌকিক ঘটনার সাথে জড়িয়ে রয়েছে এই পরিবারের কালীপুজোর ইতিহাস। এবছরও মহা ধুমধাম করে পুজোর (Kalipuja) আয়োজন করেছেন পরিবারের সদস্যরা। তবে সবকিছুই করা হয়েছে করোনা বিধি নিষেধ মেনে।

এই মুহূর্তে

x