Sunday, July 5, 2020
Home দেশ এবার করোনার কোপ ত্রিপুরার ঐতিহ্যবাহী খার্চি পুজোয়
- Advertisment -Add 22 1
- Advertisment -Golden

RECENT POSTS

পশ্চিমবঙ্গে সরকারি বিধিনিষেধ মেনেই গুরুপূজন উৎসব পালন RSS এর

গুরু পূর্ণিমা একটি বৈদিক প্রথা যার মধ্য দিয়ে শিষ্য তাঁর গুরুকে শ্রদ্ধা প্রদর্শন করেন। প্রাচীন আর্য সমাজে শিক্ষক বা গুরুর স্থান কতটা...

বাঁকুড়ার কর্মিসভা থেকে দিলীপ ঘোষকে হুমকি কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের

নরেশ ভকত, বাঁকুড়াঃ 'বাংলার তৃণমূলকর্মীদের লাল চোখ দেখাবেন না, না হলে আপনার সেই লাল চোখ আগামী ছমাসের মধ্যে হলুদ করে দেবো 'বাঁকুড়ায়...

গালওয়ানের বাড়ছে জলস্তর , চাপে ‘লালফৌজ’

ডিজিটাল ডেস্ক, জেলার খবর: গালওয়ান থেকে পিছু হচ্ছে চীন। না ভারতের চোখ রাঙানিতে নয় , প্রকৃতির কোপে চীনা সেনাবাহিনী। আচমকাই গালওয়ান নদীতে...

খানাখন্দে ভরা রাস্তায় জমে জল! সংস্কারের দাবি জানিয়ে অভিনব বিক্ষোভ বামেদের

দুর্গাপুর: রাস্তা না ডোবা ! হ্যাঁ খানাখন্দে ভরা রাস্তায় জল জমে থাকলে আমরা প্রায়শই এই কথাটা বলে থাকি। সেই কথাকেই বাস্তব রূপ...

অরবিন্দনগরে শিশুউদ্যানের উদ্বোধনে বিধায়ক

উদয় সিং, সালানপুর: অরবিন্দনগর স্পোর্টস এবং কালচারাল অ্যাসোসিয়েশনের পরিচালনায় শিশুউদ্যান পার্কের (Children's Park) উদ্বোধন করলেন বারাবনির বিধায়ক বিধান উপাধ্যায়। স্থানীয় মানুষের অনেক...

ICMR থেকে কোভিড ভ্যাকসিন ট্রায়ালের জন্য তৈরি থাকতে নির্দেশ দুর্গাপুরের চিরঞ্জিতকে

নিজস্ব সংবাদদাতা, জেলার খবর, দুর্গাপুর : প্রতীক্ষার অবসান ! বের হতে চলেছে COVID-19 এর প্রতিষেধক ভারতেই। আগামী ১৫ই আগস্ট স্বাধীনতা দিবসের দিনে...

‘আনলক টু’-তে গতি বাড়িয়ে রেকর্ড সংক্রমণ করোনার

ডিজিটাল ডেস্ক, জেলার খবর: 'আনলক ওয়ান' থেকে সবে 'আনলক টু'-তে প্রবেশ করে ভারত। তারই মধ্যে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে করোনার (Corona) সংক্রমণ ।...

বোমা বানাতে গিয়ে দুর্ঘটনা, মৃত ২

ডিজিটাল ডেস্ক, জেলার খবর : বোমা বানাতে গিয়ে বিস্ফোরণ (Bomb Blust), মৃত ২। মুর্শিদাবাদের সুতি থানা এলাকার আহিরন পাদুয়া গ্রামের ঘটনা ।...
- Advertisment -ZK ADD SQ 600x500 R300

এবার করোনার কোপ ত্রিপুরার ঐতিহ্যবাহী খার্চি পুজোয়

বিশ্বজিৎ দে, ত্রিপুরা, জেলার খবর : শনিবার থেকে শুরু হল ত্রিপুরার ঐতিহ্যবাহী খার্চি পুজো (Kharchi puja)। কিন্তু করোনা কালে ত্রিপুরার এই ঐতিহ্যবাহী পুজোতেও (Kharchi puja) কোপ পড়েছে রীতিমতন। অন্যান্য বছর এই খার্চি পুজোকে (Kharchi puja) ঘিরে একপ্রকার উৎসবের মেজাজে ভাসে গোটা ত্রিপুরা। কিন্তু করোনার করাল থাবা এবার রীতিমতো প্রভাব ফেলেছে এই পুজোতে (Kharchi puja)। শনিবার থেকে শুরু হওয়া এই পুজোকে ঘিরে অন্যান্যবার নানা রকমের আয়োজন থাকলেও এবার সেই জাঁক-জমক দেখা যায়নি। রাজার আমল থেকে চলে আসা চোদ্দ দেবতার এই পুজোয় রীতিমতন সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখেই ভক্তরা সামিল হন পুজোতে।

এবার এক নজরে দেখে নেওয়া যাক এই খার্চি পুজো (Kharchi puja) আসলে কি ?

খার্চি পূজা বা খার্চি মেলা ও উৎসব হল চৌদ্দ দেবতার পূজা। প্রাথমিক ভাবে এটা ত্রিপুরীদের উৎসব হলেও বর্তমানে সব ধর্মের মানুষ এতে সমান ভাবে অংশগ্রহণ করে। এটি সাধারণত ইংরেজি মাসের জুলাই-অগাষ্ট এর দিকে হয়ে থাকে। খার্চি পুজোর ইতিহাস সম্বন্ধে জানতে হলে আমাদের যেতে হবে ৩০০০ বছর আগে। খার্চি শব্দের আক্ষরিক অর্থ হল, খার ও চি। খার কথার অর্থ হল পাপ এবং চি কথার অর্থ হল পরিষ্কার বা মোচন করা। এক কথায় পাপ মোচন করা।এই পূজা মুলত ত্রিপুরার রাজ পরিবার এবং ত্রিপুরী রাজ চন্তাই দের পৃষ্ঠপোষকতায় চলে আসছে। চন্তাই কথার অর্থ হচ্ছে পূজারী বা পুরোহিত।রাজ চন্তাইরা বংশ পরম্পরায় নির্বাচিত হয়ে আসে।

[আরও পড়ুন: সাধারণ জনজীবনের পর এবার করোনার কোপ পূজা-অর্চনাতেও]

চৌদ্দ দেবতা মন্দিরের অষ্ট ধাতুর নির্মিত এই দেবদেবীরা হলেন হর (শঙ্কর), উমা (শঙ্করী), হরি (বিষ্ণু), মা (লক্ষ্মী), বাণী (সরস্বতী), কুমার (কার্ত্তিকেয়), গণপা (গণেশ), বিধি (ব্রহ্মা), ক্ষ্বা (পৃথিবী), অব্ধি (সমুদ্র), ভাগীরথী (গঙ্গা), শিখি (অগ্নি), কামদেব (প্রদ্যুম্ন) ও হিমাদ্রি (হিমালয় পর্ব্বত)। হর, উমা, হরি, এই তিন দেবদেবী নিত্য পূজিত হন। কিন্তু আষাঢ় মাসের শুক্লাষ্টমীতে একত্রে পূজিত হন চৌদ্দ দেবতা। ৭দিন ব্যাপী চলে এই পূজা ও জাতি উপজাতির এই মহান মিলন মেলা।

অন্যান্য বছরগুলিতে এই পুজো বা মেলা দেখতে বহু দর্শনার্থীর সমাগম হলেও এবছর করোনা সংক্রমণের কথা মাথায় রেখে দর্শনার্থীদের উদ্দেশে বেশ কিছু বিধি-নিষেধ প্রয়োগ করা হয়েছে। বন্ধ রাখা হয়েছে এই পুজোর আসল আকর্ষণ খার্চি মেলাও। উল্লেখ্য, এই উৎসব দেখার জন্য শুধুমাত্র ত্রিপুরা থেকেই নয়,দেশ-বিদেশ থেকেও বহু দর্শনার্থীরা ভিড় করতেন।

করোনার করাল থাবায় এবছর যেন এই সমস্ত কিছুই একপ্রকার সবার কাছেই স্মৃতি। খার্চি পুজোর দিন ও মন্দির প্রাঙ্গন ছিল একপ্রকার জন-মানব শূন্য। দেখা মিলেছে পরিচালন কমিটির লোকেদের মাত্র। যদিও দেবতা দর্শনের জন্য কিছু মানুষকে রাস্তার দু-ধারে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায়।

- Advertisment -ZK ADD SQ 600x500 R300

Most Popular

পশ্চিমবঙ্গে সরকারি বিধিনিষেধ মেনেই গুরুপূজন উৎসব পালন RSS এর

গুরু পূর্ণিমা একটি বৈদিক প্রথা যার মধ্য দিয়ে শিষ্য তাঁর গুরুকে শ্রদ্ধা প্রদর্শন করেন। প্রাচীন আর্য সমাজে শিক্ষক বা গুরুর স্থান কতটা...

বাঁকুড়ার কর্মিসভা থেকে দিলীপ ঘোষকে হুমকি কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের

নরেশ ভকত, বাঁকুড়াঃ 'বাংলার তৃণমূলকর্মীদের লাল চোখ দেখাবেন না, না হলে আপনার সেই লাল চোখ আগামী ছমাসের মধ্যে হলুদ করে দেবো 'বাঁকুড়ায়...

গালওয়ানের বাড়ছে জলস্তর , চাপে ‘লালফৌজ’

ডিজিটাল ডেস্ক, জেলার খবর: গালওয়ান থেকে পিছু হচ্ছে চীন। না ভারতের চোখ রাঙানিতে নয় , প্রকৃতির কোপে চীনা সেনাবাহিনী। আচমকাই গালওয়ান নদীতে...

খানাখন্দে ভরা রাস্তায় জমে জল! সংস্কারের দাবি জানিয়ে অভিনব বিক্ষোভ বামেদের

দুর্গাপুর: রাস্তা না ডোবা ! হ্যাঁ খানাখন্দে ভরা রাস্তায় জল জমে থাকলে আমরা প্রায়শই এই কথাটা বলে থাকি। সেই কথাকেই বাস্তব রূপ...
error: Content is protected !!