27.2 C
Durgapur
Saturday, January 23, 2021

এ যেন একেবারে ভীষ্মের পন, আফগানী এই স্পিনারের মন্তব্যে হাসির রোল নেটদুনিয়ায়

ডিজিটাল ডেস্ক, জেলার খবর : হিন্দু মহাকাব্য মহাভারতে পিতামহ ভীষ্ম পন নেন চিরকাল হস্তিনাপুরের রক্ষক হিসাবে থাকবেন। আর ঠিক পিতামহ ভীষ্মের শপথের মতোই শপথ নিলেন আফগানী স্পিনার রশিদ খান (Rashid Khan)। ” আফগানিস্তান বিশ্বকাপ জিতলে তবেই করব বিয়ে।” নিঃসন্দেহে এটি দেশভক্তির জ্বলন্ত উদাহরণ তাতে কোন সন্দেহের অবকাশ নেই। কিন্তু এই শপথ বাক্যই যে তাকে (Rashid Khan) গোটা নেট দুনিয়ায় একেবারে হাসির পাত্র করে তুলবে তা তিনি একবারের জন্যও ভাবতে পারেননি। কিন্তু এই শপথ নেওয়ার পর থেকেই ক্রিকেটার রশিদ খান একেবারে মশকরার পাত্র হয়ে পড়েছেন। রীতিমতো নেটিজেনরা বলিউডের চির কুমার সালমান খান বা ভাইজানের সাথে রশিদ খানের তুলনা করেছেন।

rashid 1

ক্রিকেট দুনিয়ায় একেবারে দুধের শিশু আফগানিস্তান। আজ পর্যন্ত বিশ্ব ক্রিকেট প্রতিযোগিতায় মাত্র দুবারই তারা অংশগ্রহণ করেছেন।২০১৫ সালে এবং ২০১৯ সালে দুটি ওয়ানডে ক্রিকেটে তারা অংশগ্রহণ করেছে। কিন্তু ফলাফল আশানুরূপ কিছুই হয়নি। একেবারে মুখ চুন করে বাড়ি ফিরতে হয়েছে তাদের। আর সেই দেশের এক স্পিনার তাঁর আবার ক্রিকেট বিশ্বকাপ জেতার ইচ্ছে। ঠিক এই কারণেই একপ্রকার নেট দুনিয়ায় হাসির পাত্র বনেছেন তিনি।

উল্লেখ্য, আফগানিস্তান এই পর্যন্ত দুটি ওয়ানডে ক্রিকেট খেলার সাথে সাথে দুটি টি টোয়েন্টি ক্রিকেট ও খেলেছে। কিন্তু ক্রিকেট প্রেমীদের মনে চাপ ফেলার মতন তেমন কিছুই করতে পারেনি আফগানীরা।তাতে কি ? খেলার ইচ্ছে বা বিশ্বের তাবড় তাবড় দেশগুলির সাথে লড়াই করার ইচ্ছে দুটোই যথেষ্ট আছে এই দেশের ক্রিকেটারদের মধ্যে। তাই গোটা বিশ্বের বড় বড় স্পিনারদের পিছনে ফেলে টি টোয়েন্টি ক্রিকেটে বোলারদের তালিকায় শীর্ষস্থানটি ধরে রেখেছেন রশিদ (Rashid Khan) নিজেই। সেই তারকাকেই (Rashid Khan) এক সাক্ষাৎকারে বিয়ে নিয়ে প্রশ্ন করলে তিনি বলেন, “আফগানিস্তান একবার ক্রিকেট বিশ্বকাপ জিতুক। তারপরই বাগদান আর বিয়ে করব।”

স্বাভাবিকভাবেই দেশের জার্সি গায়ে খেলা যে কোনও ক্রিকেটারই বিশ্বজয়ের স্বপ্ন দেখেন। মাস্টার ব্লাস্টার শচীন তেণ্ডুলকরের কাছেও বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হওয়ার স্মৃতি মধুরতম। তাই রশিদের স্বপ্ন দেখায় কোনও ‘ভুল’ নেই। কিন্তু আফগান স্পিনারের মন্তব্য নিয়ে শুরু হয়ে যায় হাসি ঠাট্টা। আসলে অদূর ভবিষ্যতে আফগানিস্তান বিশ্বকাপ জিততে পারে, এমন কোনও সম্ভাবনাই দেখেন না ক্রিকেটভক্তরা। সেই জন্যই ট্রোলের মুখে পড়তে হয় ২১ বছরের স্পিনারকে।

অনেকে জিজ্ঞেস করেন, রশিদ কি নতুন সলমন খান হবেন? অনেকে আবার রশিদের বয়স অনেকখানি বাড়িয়ে ছবি পোস্ট করে লিখেছেন, ২০৫০ সালেও রশিদ বসে রয়েছেন। কিন্তু আফগানিস্তানের বিশ্বকাপ জেতা হল না। যদিও পুরোটা মজার ছলেই লিখেছেন নেটিজেনরা। সানরাইজার্স হায়দরাবাদের তারকার প্রতিভা নিয়ে কোনও দ্বিধা নেই ক্রিকেটপ্রেমীদের।

এই মুহূর্তে

x

php shell shell indir hacklink ko cuce