27.4 C
Durgapur
Monday, June 21, 2021

ফিজিক্যাল ডিসট্যান্সিং-কে বুড়ো আঙ্গুল ! ছটপুজোর বাজারে উপচে পড়া ভিড়

নিজস্ব সংবাদদাতা, আসানসোল: করোনা প্রতিরোধে বহুল ব্যবহৃত শব্দ ‘সোশ্যাল ডিসট্যান্সিং’ এর বদলে এবার থেকে ‘ফিজিক্যাল ডিসট্যান্সিং’ কথাটি ব্যবহার করার কথা জানিয়েছে কেন্দ্র। অর্থাৎ ,এখন থেকে সমস্ত রকম করোনা বিধির ক্ষেত্রে ব্যবহৃত হবে ‘শারীরিক দূরত্ব’ কথাটি। তৃণমূলের দাবি মেনে আজ এই সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রক। কিন্তু সংক্রমণ রুখতে যে ‘দূরত্ব’ বজায় রাখার কথা প্রশাসন বার বার বলছে তার পুরো উল্টো ছবি দেখা গেল ছট পুজোর বাজারে।

সংকট না কাটলেও বাজারগুলিতে ‘শারীরিক দূরত্ব’ মানছে না একশ্রেণীর মানুষ। আনলক পর্বে উৎসব অনুষ্ঠান সরকারি করোনা বিধিনিষেধ মেনে আয়োজিত হলেও বাজারগুলিতে এখনো সেই অসচেতন ছবি। বিনা মাস্কে, গাদাগাদি করে ছটের কেনাকাটা করছেন মানুষ। শুক্রবার সকালে কুলটির নিয়ামতপুর (Neamatpur) ফাঁড়ির অন্তর্গত নিয়ামতপুর (Neamatpur) বাজারে ছটপুজোর শেষ মুহূর্তের কেনাকাটা করতে বাজারে এইভাবেই ভিড় জমাচ্ছেন সকলে।

শারীরিক দূরত্ববিধিকে বুড়ো আঙ্গুল দেখিয়ে, মাস্ক না পরে চলছে কেনাকাটা। ক্রেতাদের কেউ কেউ মাস্ক পড়লেও (Neamatpur) বাজারে ফল ও সবজি বিক্রেতাদের দেখা গেল মাস্ক ছাড়াই ।

যেখানে প্রশাসনের তরফে বারংবার করোনা নির্দেশিকা পালনের জন্য আবেদন করা হয়েছে মানুষের কাছে। প্রচার করা হয়েছে তা সত্ত্বেও নিজেদের সুরক্ষার জন্য বিন্দুমাত্র সচেতন নন এক শ্রেণীর মানুষ। উৎসবের মরসুমের এই অসচেতন ছবি সংক্ৰমণ পরিস্থিতিকে কোন পর্যায়ে নিয়ে যাবে সেটাই এখন চিন্তার বিষয়।

এই মুহূর্তে

x