17.9 C
Durgapur
Wednesday, January 27, 2021

জামুরিয়ার মিঠাপুর কোড়াপাড়া অঞ্চলের বাসিন্দাদের আতঙ্কের বাস !

উদয় সিং, আসানসোল: ব্যবিলনের ঝুলন্ত উদ্যানের কথা জানেন নিশ্চই , বর্তমানে এমনই ঝুলন্ত অবস্থায় দিন যাপন করছেন জামুরিয়ার (Jamuria) ৮ নম্বর ওয়ার্ডের মিঠাপুর কোড়াপাড়া অঞ্চলের বাসিন্দারা । এই অঞ্চলের নীচ দিয়ে, কয়লা খনি চলে গেছে বিস্তীর্ণ অঞ্চলজুড়ে । তবে খনির খননকার্য সেই অংশে হলেও তা সঠিকভাবে ভরাট না করার ফলে ওই খনির চারপাশের গ্রামগুলি বর্তমানে ঝুলন্ত অবস্থায় রয়েছে, বলেই দাবি এলাকাবাসীর । এরই মধ্যে এলাকার প্রায় দেড়শো বাসিন্দা জীবন হাতে নিয়ে বসবাস করছেন সেখানে । সকাল বেলা বাড়ির মধ্যে ভয়ে-আতঙ্কে দিন কাটালেও, বাতের বেলায় বাড়ি ছেড়ে সকলে আশ্রয় নিচ্ছেন এলাকা লাগোয়া এলাকার স্কুল বাড়ি কিংবা মাঠে-ময়দানে।

খবর জানাজানি হয় দিন কয়েক আগেই, একদিন প্রবল বৃষ্টির সময় জামুরিয়ার(Jamuria) মিঠাপুর কোড়াপাড়ার বাসিন্দা ভক্তি গড়াইয়ের কুয়োর মধ্যে বৃষ্টির জল পড়ে অসম্পূর্ণ পুরনো কুয়োর দেওয়ালের একপ্রান্তে গর্ত করে দেয় । ভক্তি গড়াই সেই ঘটনার কথা প্রতিবেশীদের জানালে তারা ওই কুয়োর ৪৫ ফুট গভীরের গর্তের ভিতরে কি আছে তা জানতে উদগ্রীব হয়ে পড়েন । স্থানীয় চার যুবক অন্তু কোড়া, বাপি কোড়া,গনেশ কোড়া ও বাবু মাঝি কৌতূহলবশত ঐ গর্তের ভিতর ঢুকে তার মাপজোক করতে শুরু করেন। দেখা যায় ভিতরের প্রায় ৪৯ ফুট লম্বা ও ৬৩ ফুট চওড়া এলাকা একেবারে খালি । অর্থাৎ , একটা ফুটবল গ্রাউন্ড এর আকারে খালি জায়গা হয়ে রয়েছে ভিতরে । গর্তের চারপাশে বিভিন্ন গাছের শিকড় ঝুলছে।

ভিতরের সেই ভয়াবহ পরিস্থিতির ছবি তুলে এনে যুবকরা এলাকার অন্যদের দেখান , যা দেখে স্বাভাবিকভাবেই ভীতসন্ত্রস্ত হয়ে পড়েন তারা । এলাকাবাসী কবিতা কোড়া, মুন্নি কোড়ারা বাড়িঘর ছেড়ে, ছেলেমেয়ে ও সকল সদস্যদের সঙ্গে নিয়ে লাগোয়া এলাকার স্কুল ঘরে, মাঠে-ময়দানে দিন কাটাচ্ছে। যেকোনো সময় ধসের কবলে পড়তে পারেন তারা এই আশঙ্কায় আশঙ্কিত ।
বিষয়টি নিয়ে খনি কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলা হলে, খনি কর্তৃপক্ষ এইবিষয়ে খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা গ্রহণ করবে বলে জানিয়েছে । এলাকাবাসীদের দাবি, খনি কর্তৃপক্ষ ওই অংশটির চারপাশে খনি গহবরের মাঝে ফাঁকা স্থানগুলি ভরাট করে এলাকাটিকে যেন তাদের বসবাসযোগ্য করে দেয় । কারণ, ভিটেমাটি ছেড়ে অন্যত্র স্থানান্তর হতে তারা কেউই চান না ।

এই মুহূর্তে

x

php shell shell indir hacklink ko cuce