Thursday, July 9, 2020
Home রাজ্য দক্ষিনবঙ্গ সবুজ পেরিয়ে কমলায় , এবার বীরভূম, আতঙ্কে দিনযাপন জেলাবাসীর
- Advertisment -Add 22 1
- Advertisment -Golden

RECENT POSTS

খোঁজ মিলল নিখোঁজ বেসরকারি সংস্থার আধিকারিক রাজেশের

ডিজিটাল ডেস্ক , জেলার খবর: অবশেষে খোঁজ মিলল বেসরকারি সংস্থার আধিকারিক নিখোঁজ (Missing) রাজেশ জৈনের। বৃহস্পতিবার বাংলা ঝাড়খন্ড সীমানার ডুবরি চেকপোস্ট...

মিড ডে-মিলের বরাদ্দ থেকে কাটছাঁট , অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক

নরেশ ভকত, বাঁকুড়াঃ প্রধান শিক্ষকের (Head Master) বিরুদ্ধে মিড ডে মিলের চাল, ডাল, আলু কম দেওয়ার অভিযোগ এনে বিক্ষোভে সামিল হলেন অভিভাবক...

মৎস্যচাষী দিবস উদযাপন মন্ত্রী কক্ষে

ডিজিটাল ডেস্ক, জেলার খবর: বর্তমান পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে , কোনরকম উৎসবের আমেজে না মেতে একরকম অনাড়ম্বর ভাবেই উদযাপন করা হল মৎস্য...

করোনা মোকাবিলায় বাংলাকে আর্থিক সাহায্য ঘোষণা কেন্দ্রের

ডিজিটাল ডেস্ক, জেলার খবর: করোনা মোকাবিলায় রাজ্যকে আর্থিক সাহায্য ঘোষণা কেন্দ্রের। বৃহস্পতিবার পশ্চিমবঙ্গের জন্য প্রায় ৪২০ কোটি টাকার আর্থিক প্যাকেজের ঘোষণা করল...

অবশেষে পুলিশের জালে ধরা পড়ল কানপুরের কুখ্যাত ডন বিকাশ দুবে

ডিজিটাল ডেস্ক , জেলার খবর: অবশেষে পুলিশের জালে ধরা পড়ল কানপুরের কুখ্যাত ডন (Gangstar) বিকাশ দুবে। কয়েকদিন আগেই কুখ্যাত এই ডনকে ধরতে...

২৪ ঘন্টায় ফের সর্বোচ্চ সংক্রমণ দেশে , আক্রান্তের সংখ্যা ২৫ হাজার ছুঁইছুঁই

ডিজিটাল ডেস্ক , জেলার খবর: নেই স্বস্তি , 'আনলক টু'- তে আরও বাড়াবাড়ি করোনার (Corona) । অতীতের সমস্ত রেকর্ড ভেঙে একদিনে আক্রান্তের...

উদ্বেগ বাড়াচ্ছে করোনা , সতর্কতা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার

ডিজিটাল ডেস্ক, জেলার খবর : সারাবিশ্বে দ্রুততার সঙ্গে বেড়েই চলেছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা । বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার আশঙ্কা অনুযায়ী, প্রতিদিন প্রায় ২...

সোনামুখীতে রাজনৈতিক দলবদল অব্যাহত

নরেশ ভকত, বাঁকুড়াঃ ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনে বাঁকুড়ায় তৃণমূলের আশানুরূপ ফল না হওয়ার কারনে সোনামুখী তৃণমূল কংগ্রেস আগামী বিধানসভা নির্বাচনকে পাখির চোখ করে...
- Advertisment -ZK ADD SQ 600x500 R300

সবুজ পেরিয়ে কমলায় , এবার বীরভূম, আতঙ্কে দিনযাপন জেলাবাসীর

শুভময় পাত্র , বীরভূম : করোনা ভাইরাস গ্রাস করেছে গোটা রাজ্য তথা দেশকে। আর আক্রান্তের নিরিখে রাজ্যসরকার বিভিন্ন্য জায়গাগুলিকে বিভিন্ন্য জন্যে ভাগ করেছে। গ্রিন জোন , অরেঞ্জ জোন , রেড জোন ইত্যাদি। এতোদিন রাজ্যসরকারের স্বাস্থ্য বিভাগের পক্ষ থেকে বীরভূম জেলাকে গ্রিন জোন এর আখ্যা দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু কয়েকদিন আগেই বীরভূমের রামপুরহাট মহকুমার ময়ূরেশ্বর ১ ব্লকে খোঁজ মেলে ৩ করোনা পসিটিভ রোগীর। আর এতেই অরেঞ্জ জোনে যাওয়া একপ্রকার নিশ্চিত হয়ে যায়। এই খবর আমরা আপনাদের আগেই জানিয়েছিলাম। এবার এই আশঙ্কাকে নিশ্চিত করে বীরভূমকে অরেঞ্জ জোনের তকমায় সিলমোহর দিল রাজ্যসরকার। আর সেই কারণেই এখন আতঙ্ক দানা বেঁধেছে সারা বীরভূমবাসির মনে।

উল্লেখ গত ২৬ তারিখ মুম্বাই থেকে চিকিৎসা করিয়ে বাড়ি ফেরেন রামপুরহাট মহকুমার ময়ূরেশ্বর ১ ব্লকের যে তিনজন বাসিন্দা প্রাথমিকভাবে অনুমান করা যেতে পারে তাদের জন্যই হয়তো গ্রীন জোনের খেতাব হারাতে বসেছেন বীরভূম।কারণ এই তিনজনই ছিলেন করোনা পসিটিভ। আর সেই কারণেই হয়তো আজ অরেঞ্জ এর আওতাধীন বীরভূম জেলা।

এদিকে গ্রীন থেকে অরেঞ্জ জোন এ আসার ফলে বীরভূম জেলা প্রশাসন এক প্রশাসনিক বৈঠকের মধ্যে দিয়ে ১২ দফা নির্দেশিকা জারি করেছেন। বীরভূম জেলা প্রশাসনের তরফে এই নির্দেশিকায় বলা আছে কি কি করতে পারবেন আর কি পারবেন না। প্রথমত:গ্রীন জোন এ থাকার সুবাদে বাস চলাচলের নির্দেশ দিয়েছিল জেলা প্রশাসন ৫০% যাত্রীদের নিয়ে। তা পুরোপুরি বন্ধ হয়ে গেল অরেঞ্জ আসার ফলে। দ্বিতীয়তঃ পাড়ার ছোটখাটো দোকান খুলে রাখার অনুমতি থাকলেও তাদেরকে মেনে চলতে হবে সামাজিক দূরত্ব ও মাক্স ব্যবহারের বাধ্যতা। তৃতীয়তঃ বাজারের সমস্ত দোকান বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে জেলা প্রশাসন যারা বাজারের মধ্যে দোকান খুলতে চান তারা প্রশাসনের কাছে আবেদন করে খুলতে পারেন। সেটাও আবার সিদ্ধান্ত নেবেন মহকুমা শাসক , থানার আইসি ও পৌর প্রতিনিধি সহ তিনজনের এক প্রতিনিধি দল। তারাই সিদ্ধান্ত নেবেন কোন দোকান খোলা যাবে আর কোনটা খোলা যাবে না চতুর্থত: গ্রামাঞ্চলের ক্ষেত্রে একইভাবে বিডিও , থানার অফিসার ইনচার্জ ও গ্রাম পঞ্চায়েত সমিতির প্রতিনিধি দ্বারা নির্বাচিত তিন জনের এক প্রতিনিধিদল সিদ্ধান্ত নেবেন এইসব বিষয়ে ক্ষেত্রে। পঞ্চমত: চা ও পানের দোকান একটি নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে খোলা থাকবে সকাল ৬ টা থেকে সকাল ১০ টা পর্যন্ত তাও সামাজিক দূরত্ব মেনে মাক্স ব্যবহার করে আসতে হবে সকলকে। ষষ্ঠতঃ জেলার মধ্যে বালি ও পাথরের ব্যবসা করা যাবে কিন্তু জেলার বাইরে যেতে গেলে প্রশাসনের উপযুক্ত অনুমতি নিয়ে তারপর যেতে হবে । সপ্তমতঃ ব্যক্তিগত কনস্ট্রাকশন এর ক্ষেত্রে শহরাঞ্চলে জেলা প্রশাসনের অনুমতি বাধ্যতামূলক হলেও গ্রামের ক্ষেত্রে তা নিষ্প্রয়োজন। অষ্টমত: ব্যক্তিগত অফিসের ক্ষেত্রে ২৫% কর্মীদের নিয়ে অফিস চালানোর নির্দেশ দিয়েছেন জেলা প্রশাসন। নবমতম: সেলুন ও স্পা জাতীয় কোন কিছু খোলা যাবে না। এটি পুরোপুরি বন্ধের নির্দেশ দিয়েছেন জেলা প্রশাসন। দশমতম: বেশ কিছু সামাজিক অনুষ্ঠানের ক্ষেত্রে ৬০ জনের বেশি জনসমাগমের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছেন জেলা প্রশাসন। আর তার মধ্যেও সামাজিক দূরত্ব ও মাক্স এর ব্যবহার বাধ্যতামূলক করেছেন। একাদশতম: ব্যক্তিগত গাড়ির ব্যবহারের ক্ষেত্রে ড্রাইভারসহ দুজনের যাতায়াতের নির্দেশ দিয়েছেন প্রশাসন। দ্বাদশ তথা শেষ নির্দেশনায় বলা হয়েছে উপরিউক্ত এই ১১ দফা নির্দেশ যে বা যারা অমান্য বা লংঘন করবেন তাদের উপর আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। প্রয়োজনে গ্রেপ্তার করাও হতে পারে তাদের ।

- Advertisment -ZK ADD SQ 600x500 R300

Most Popular

খোঁজ মিলল নিখোঁজ বেসরকারি সংস্থার আধিকারিক রাজেশের

ডিজিটাল ডেস্ক , জেলার খবর: অবশেষে খোঁজ মিলল বেসরকারি সংস্থার আধিকারিক নিখোঁজ (Missing) রাজেশ জৈনের। বৃহস্পতিবার বাংলা ঝাড়খন্ড সীমানার ডুবরি চেকপোস্ট...

মিড ডে-মিলের বরাদ্দ থেকে কাটছাঁট , অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক

নরেশ ভকত, বাঁকুড়াঃ প্রধান শিক্ষকের (Head Master) বিরুদ্ধে মিড ডে মিলের চাল, ডাল, আলু কম দেওয়ার অভিযোগ এনে বিক্ষোভে সামিল হলেন অভিভাবক...

মৎস্যচাষী দিবস উদযাপন মন্ত্রী কক্ষে

ডিজিটাল ডেস্ক, জেলার খবর: বর্তমান পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে , কোনরকম উৎসবের আমেজে না মেতে একরকম অনাড়ম্বর ভাবেই উদযাপন করা হল মৎস্য...

করোনা মোকাবিলায় বাংলাকে আর্থিক সাহায্য ঘোষণা কেন্দ্রের

ডিজিটাল ডেস্ক, জেলার খবর: করোনা মোকাবিলায় রাজ্যকে আর্থিক সাহায্য ঘোষণা কেন্দ্রের। বৃহস্পতিবার পশ্চিমবঙ্গের জন্য প্রায় ৪২০ কোটি টাকার আর্থিক প্যাকেজের ঘোষণা করল...
error: © All Rights Reserved. Powered By Garai Vision.