26.8 C
Durgapur
Monday, August 2, 2021

মাধ্যমিক (secondary-examination) পরীক্ষায় বারাবনির ছেলে সুমন দত্তের প্রাপ্ত নম্বর ৬৯৭,পরীক্ষায় প্রথম তালিকায় নাম আসায় খুশি পরিবার

মাধ্যমিক (secondary-examination)পরীক্ষায় বারাবনির ছেলে সুমন দত্তের প্রাপ্ত নম্বর ৬৯৭,পরীক্ষায় প্রথম তালিকায় নাম আসায় খুশি পরিবার

বারাবনি::করোনার জেরে এইবার মাধ্যমিক পরীক্ষা (secondary-examination)বাতিল করা হয়েছিলো। ছাত্রছাত্রীদের নবম শ্রেণীর নম্বর ও দ্বাদশ শ্রেণীর মক টেস্টের নম্বর অনুসারে সোমবার প্রকাশিত করা হয় মাধ্যমিক পরীক্ষার (secondary-examination)ফল। যেখানে মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১০লক্ষ ৮৯হাজার ৭৪৯ জন।তার মধ্যে প্রথম স্থান অধিকার করেন ৭৯জন।যার মধ্যে পশ্চিম বর্ধমান জেলার বারাবনির গৌরান্ডি আর. কে.এস ইনস্টিটিউশনের ছাত্র সুমন দত্তের নাম উঠে আসে।তার এই সফলতায় খুশির ছায়া নেমে আসে সুমনের পরিবার সহ সমস্ত বারাবনি অঞ্চলে। ছাত্র সুমন দত্ত হলেন মধ্যবিত্ত পরিবারের ছেলে বাবা কার্তিক দত্ত হলেন গৌরান্ডি আর.কে.এস ইনস্টিটিউশনের প্যারা টিচার। ছেলের এই সাফল্যে খুশি বাবা ও বিদ্যালয়ের শিক্ষক শিক্ষিকারা। এই প্রসঙ্গে ছাত্র সুমন দত্ত বলেন যদি পরীক্ষা হতো তবে হয়তো আরো ভালো হতো।তাহলে আমি এক থেকে দশের মধ্যে হতাম।এই ফল আমিও আসা করিনি তবে হয়তো ভবিষ্যতে অসুবিধা হতে পারে,কিন্তু আমার লক্ষ্য ইতিহাস নিয়ে আগামী দিনে আরো এগিয়ে যাওয়া।
ছেলের রেজাল্ট প্রসঙ্গে সুমন দত্তের বাবা কার্তিক দত্ত বলেন করোনার জেরে পরীক্ষা হয়নি হলে হয়তো আমার ছেলে এক থেকে দশের মধ্যে হত।আমরা মধ্যবিত্ত পরিবারের আমার ইচ্ছা আগামী দিনে ইতিহাস নিয়ে সে এগিয়ে যাক।
ছেলের রেজাল্ট প্রসঙ্গে সুমন দত্তের মা টুম্পা দত্ত বলেন আমরা যৌথ পরিবারে বসবাস করি।এই বাড়িতে সুমনের দিদি,দাদা পড়া শোনায় খুব ভালো।আর সুমন এত ভালো ফল করবে সেটা হয়তো আসা করিনি।কিন্তু সুমন ছোট থেকেই পড়াশুনায় ভালো। আজ আমার খুব খুশিতে রয়েছি।
ছাত্র সুমন দত্তের বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক তুষার ব্যানার্জী বলেন বিদ্যালয়ে মোট ৩২৮জন পরীক্ষার্থী ছিলেন তার মধ্যে সুমন দত্ত প্রথম হয়েছেন।তাছাড়া প্রথম আমাদের বিদ্যালয় থেকে সারা রাজ্যে প্রথম স্থানের তালিকায় সুমনের নাম আসায় আমাদের সমস্ত শিক্ষক-শিক্ষিকা গর্বিত। আগামী দিনে সুমনের ভবিষ্যৎ উজ্জ্বল হোক এটাই আশা করি।

এই মুহূর্তে

x