31 C
Durgapur
Wednesday, October 21, 2020
Maa

হাথরাসে বৌদি সেজে কে ছিলেন নির্যাতিতার বাড়িতে ? ছদ্মবেশীর পরিচয় খুঁজতে ধন্দে পুলিশ

ডিজিটাল ডেস্ক, জেলার খবর: হাথরাস (Hathras) নিয়ে তদন্ত যত এগোচ্ছে ততই সামনে আসছে একের পর এক চাঞ্চল্যকর তথ্য। দেশ জুড়ে আলোড়ন ফেলে দেওয়া গণধর্ষণের ঘটনাকে আগেই শুধুমাত্র খুনের তকমা দিয়েছিল যোগী প্রশাসন।

ময়নাতদন্তের রিপোর্ট অনুযায়ী পুলিশের বয়ান ছিল ,নির্যাতিতার শরীরে ধর্ষণের কোনও চিহ্ন ছিল না। অর্থাৎ, বুলগড়ী গ্রামের ওই যুবতীর গণধর্ষণ হয়নি। তবে তাঁকে নৃশংসভাবে খুন করা হয়েছিল। ঘটনাকে ভুল প্রেক্ষিতে দেখিয়ে দাঙ্গা বাঁধানোর চেষ্টা করা হচ্ছে বলে দাবি করেছিল উত্তরপ্রদেশের প্রশাসন। এরপরই শনিবার ঘটনার তদন্তভার কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার হাতে তুলে দেওয়া হয়। সামনে আছে চাঞ্চল্য কর তথ্য।

ঘটনার সঙ্গে এবার নকশাল যোগের গন্ধ পাচ্ছেন তদন্তকারীরা। ইতিমধ্যেই নির্যাতিতার বাড়ির চারপাশে সিসিটিভি লাগানোর ব্যবস্থা করেছে পুলিশ। এমনকী সিভিল ড্রেসে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। পরিবারের লোকজনকে প্রায় নজরবন্দি করে রাখা হয়েছে। এত নিরাপত্তার কারণ হল ওই যুবতীর বাড়ির এক মহিলা সদস্যকে নিয়ে।

জানা গিয়েছে, এতদিন পর্যন্ত নির্যাতিতার বৌদি হিসেবে পরিচয় দেওয়া এক মহিলা সেখানে ছিলেন। তিনি নিজেকে স্থানীয় এক মেডিক্যাল কলেজের প্রফেসর হিসেবে পরিচয় দেন। এতদিন পর্যন্ত তিনিই নির্যাতিতার বৌদি সেজে বয়ান দিতেন।

মহিলার গতিবিধি দেখে এসআইটি-র সদস্যদের প্রথম সন্দেহ হয়। তার পরই পুলিস ওই ছদ্মবেশী মহিলার পরিচয় খুঁজতে নেমে পড়ে। জানা যায়, জব্বলপুরের এক মেডিকেল কলেজের অধ্যাপিকা রাজকুমারী বানসাল নকশাল আন্দোলনের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। মামলাকে প্রভাবিত করতেই নাকি তিনি হাথরাসের (Hathras) বুলগড়ী গ্রামে পৌঁছেছিলেন ।

পুলিশের অনুমান নির্যাতিতার পরিবারকে উসকানি দিচ্ছিলেন ওই মহিলা। মিডিয়ার কীভাবে দলিত কার্ড খেলতে হবে সেই সবকিছুই তার মস্তিষ্কপ্রসূত। পুলিশের সন্দেহের কথা টের পেয়ে নাকি তিনি উধাও হয়ে যান।

পরিচয় জানাজানি হওয়ার পর ওই মহিলা দাবি করেছেন, মানবিকতার খাতিরে (Hathras) হাথরাসের নির্যাতিতার পরিবারের কাছে তিনি ছুটে যান । অন্যদিকে, নির্যাতিতার পরিবারের দাবি, ওই মহিলা তাঁদের দুঃসম্পর্কের আত্মীয়া। বিপদের দিনে পরিবারের আর পাঁচজন সদস্যের মতো তিনিও তাদের পাশে এসে দাঁড়িয়েছিলেন।

এই মুহূর্তে

বোধনের আগেই বিসর্জন ! ৩ কন্যাকে দামোদরে ছুঁড়ে ফেলল বাবা

ডিজিটাল ডেস্ক, জেলার খবর: মৃন্ময়ী মায়ের আরাধনায় মেতেছে দেশ , চারিদিকে সাজ সাজ রব। অথচ রক্তমাংসের সেই মায়ের রূপ ঘরে জন্মালেই হয়ে...

‘নিউ নর্মাল’-এ মা দুর্গার মুখেও এবার মাস্ক !

নিজস্ব প্রতিনিধি , বীরভূম: করোনা আবহে পুজো , তাই সতর্কতাই একমাত্র লক্ষ্য। সেই ভাবনাকে সঙ্গে নিয়ে এবছর দুর্গাপুজোর আয়োজন করেছে সাঁইথিয়া (Sainthia)...

পঞ্চমী তিথি থেকেই পুজো শুরু সিউড়ির বসাক পরিবারে

নিজস্ব সংবাদদাতা ,বীরভূম: ষষ্ঠীতে বোধনের মধ্যে দিয়ে দুর্গাপূজার (Durgapuja) সূচনা হলেও সিউড়ির মালিপাড়ার বসাক পরিবারে মা উমার আরাধনা শুরু হয়ে যায় পঞ্চমী...

লকডাউন উঠে গেলেও, করোনা যায়নি ; উৎসবের মরসুমে দেশবাসীকে সতর্কবার্তা প্রধানমন্ত্রীর

ডিজিটাল ডেস্ক, জেলার খবর: উৎসবের আবেগে ভাসছে গোটা দেশ। দুর্গাপুজো, নবরাত্রি, দশেরা , ঈদ একের পর এক উৎসবের প্রস্তুতি চলছে নিজের মতো...

পুজোর উপহার নিয়ে হাজির অন্ডাল থানার নবনিযুক্ত ভারপ্রাপ্ত আধিকারিক

সোমনাথ মুখার্জী,জেলার খবর, অন্ডাল : মঙ্গলবার অন্ডাল থানার নবনিযুক্ত ভারপ্রাপ্ত আধিকারিক শান্তনু অধিকারী হাজীর হলেন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন 'অন্ডাল পরিবারে'। সেখানে পুজোর মুখে...

নৃত্যাঙ্গন বিদ্যানিকেতনে শুরু হল শাস্ত্রীয় নৃত্য উৎসব

নিজস্ব প্রতিনিধি , বীরভূম: নৃত্যাঙ্গন বিদ্যানিকেতনের প্রাণপুরুষ টুলটুল আহমেদের আদর্শকে সামনে রেখে করোনা বিধি মেনে সিউড়িতে নৃত্যাঙ্গন বিদ্যানিকেতনের গুরুকুল প্রাঙ্গণে শুরু হলো...

‘অ-সচেতন’ মানুষদের ‘সচেতন’ করতে রাস্তায় সোনামুখী থানার ওসি এবং বিডিও

নরেশ ভকত, জেলার খবর, বাঁকুড়া : এই মুহূর্তে গোটা বিশ্বে আতঙ্কের আরেক নাম নোবেল করোনাভাইরাস (COVID-19)। এই ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে গোটা বিশ্ব...

করোনা আতঙ্ক কাটিয়ে সোনারতরী -তে মঞ্চস্থ হল নাটক

নিজস্ব প্রতিনিধি, বীরভূম: করোনা থামিয়ে দিয়েছে প্রচলিত অভ্যাসকে l কিন্তু বর্তমান সমাজে করোনার প্রভাব কিভাবে নাট্য (Drama) জীবনকে ব্যাহত করেছে শীতলপাটি নাটকে...
Maa Aschhe01
x